রুপগঞ্জে আগুনে ভষ্মীভূত সেজান জুস কারখানা পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আ’লীগের প্রতিনিধি দল ## দোষীদের শাস্তি পেতেই হবে-বস্ত্র মন্ত্রী দস্তগীর গাজী

সংবাদটি শেয়ার করুন:

স্বাধীন বাংলাদেশ রিপোর্ট:
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কোম্পানিতে আগুন লেগে ৫২ জন নিহত হওয়ার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন আওয়ামী লীগের ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মীর্জা আজমসহ একটি প্রতিনিধি দল।
গতকাল রবিবার (১১ জুলাই) দুপুরে আওয়ামী লীগের সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। প্রতিনিধি দলে ছিলেন আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃনাল কান্তি এমপি, আব্দুল ওহাব অপু এমপি, দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় সদস্য শামীম আহমেদ প্রমুখ।
পরিদর্শনের সময় বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেন, সেজান জুসের আগুনের ঘটনায় দোষীদের শাস্তি পেতেই হবে। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী নিবীড় পর্যবেক্ষণ করছেন। শ্রমিকদের প্রাণহানি মেনে নেওয়া যায় না। কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।
তিনি আরও বলেন, কারখানা নির্মাণে কোনো অনিয়ম চলবে না। শ্রমিকদের প্রতি অন্যায় করা হয়ে থাকলে দোষীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। হতাহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সরকারের পাশাপাশি কারখানার মালিকপক্ষ থেকেও তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এসময় প্রতিনিধি দলের সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য মৃনাল কান্তি দাস, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সৈয়দ আব্দুল আউয়াল, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত শহীদ বাদল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম বাবু, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহজাহান ভুঁইয়াসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *