সোনারগাঁ জামপুরের কলতাপাড়া কবরস্থান হতে কাইল্লারটেক রাস্তার বেহাল দশা

সংবাদটি শেয়ার করুন:

কাজী নেওয়াজ শরীফঃ

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের কলতাপাড়া কবরস্থান হতে কাইল্লারটেক মঙ্গলের বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা একেবারে কাঁচা। রাস্তা বললেও ভুল হবে। অনেকটা ধান রোপণ করার উপযোগী ক্ষেতের মতো। গাড়ি দূরে থাক, হেঁটে পার হওয়াই মুশকিল। তার পরও প্রয়োজনের তাগিদে ওই রাস্তা দিয়েই চলাচল করতে হচ্ছে স্কুলকলেজের ছাত্রছাত্রীসহ পাশে থাকা মিলের শ্রমিকদের। এই রাস্তা পার হতে গিয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে গ্ৰামবাসীর

ভোগান্তির পাশাপাশি বিপত্তির শিকারও হতে হচ্ছে তাদের। রাস্তার বেহাল দশার কারণে কোনো আত্মীয়স্বজনও এই গ্রামে আসতে চায় না। গভীর রাতে এই গ্রামের কারো প্রসববেদনা উঠলে কাঁধে করে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয় অন্তঃসত্ত্বাকে মাত্র এক কিলোমিটার রাস্তা পাকা না হওয়ায় চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন  গ্রামের অধিবাসীরা। কাঁচা রাস্তার কারণে বর্ষা মৌসুমে চরম দুর্ভোগে পড়তে হয় স্কুলগামী ছাত্রছাত্রীসহ এই অঞ্চলের জনসাধারণকে। ফুট প্রশস্ত এই রাস্তাটি পাকাকরণ তো দূরের কথা, মাটি দিয়ে প্রয়োজনীয় সংস্কারও করা হয় না। ফলে রাস্তাটি চলাচলের একেবারেই অযোগ্য থাকে বছরের প্রায় অর্ধেক সময়। শুষ্ক মৌসুমেও রাস্তাটির কাদা শুকিয়ে থাকায় চলাচল সহজ হয় না। তাই রাস্তাটির কারণে মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে এই জনপদের বাসিন্দাদের এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিন কোনো সংস্কার না করায় এই কাঁচা রাস্তাটি বর্ষা মৌসুমে তা হাবড়ে (গভীর কাদা) পরিণত হওয়ায় একেবারেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে যায়। রাস্তার মাটি এঁটেল হওয়ায় হেঁটে চলাচল প্রায় অসম্ভব হয়ে উঠেছে এই রাস্তা দিয়ে বর্তমানে এই রাস্তায় স্থানভেদে থেকে ফুট পর্যন্ত কাদার গভীরতা আছে রাস্তাটি সংস্কার পাকাকরণের ব্যাপারে জামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হামীম শিকদার শিপলু বলেন, যেকোনো কারণেই হোক রাস্তাটি করা সম্ভব হয়নি। তবে তিনি আশা প্রকাশ করেন, চলতি অর্থবছরের মধ্যে রাস্তাটি পাকা করা সম্ভব হবে


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *