1. admin@dailysadhinbangladesh.com : admin :
  2. n.ganj.jasim@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক: : নিজস্ব প্রতিবেদক:
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ইসলামী আন্দোলন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার দ্বায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সময়সীমা বৃদ্ধিতে আমরা হতাশ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে শিরোপা জিতে নিলো কাশিপুর ইউনিয়ন নৌকাতেই তাদের ভরসা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আজমেরী ওসমানের পক্ষে আনন্দ র‌্যালী নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডে উদ্ধারকৃত লাশের পরিচয় ৩ দিনেও মেলেনি নারায়ণগঞ্জ সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ ভোকেশনালের মাঠ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন খালেদা জিয়ার জন্মসনদসহ নথিপত্র তলব গোদনাইল তাঁতখানা স্কুল সংলগ্ন হুমায়ূন কবীর ভিলা থেকে গার্মেন্টস কর্মী সোহাগের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ফতুল্লায় দিনেদুপুরে অভিনব কায়দায় ইজিবাইক ছিনতাই ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা নিয়ে মুখ খুললেন পরীমনি

৫টাকায় পেট ভরে খাবার আয়োজন

প্রশাসন
  • সময় : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ১০ বার পঠিত
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্বাধীন বাংলাদেশ রিপোর্ট:
বিদ্যানন্দের পর এক ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন করেছে সামাজিক সেচ্ছাসেবী সংগঠন মুক্তিতরী। সংগঠনের দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘পঞ্চে তৃপ্তি’ শুরু করেছে এর ফলে অসহায় ও ভাম্যমান মানুষ পাচ্ছে নাম মাত্র ৫টাকা মূল্যে খাবার। সম্পূর্ণ সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবীদের অর্থায়নে চলছে এ পঞ্চে তৃপ্তির কর্মসূচী। গত ১ জুন মুক্তিতরী তৃতীয় বর্ষে পর্দাপন উপলক্ষ্যে এক ভিন্নধর্মী আয়োজন করেছে মুক্তিতরী। নাম মাত্র ৫টাকা মূল্যে অসহায় ও ভাম্যমান মানুষদের দুপুরের আহারের ব্যবস্থা করেছে। ৫টাকায় পাচ্ছে পেট ভরে খাবার জন্য ভাত,মাংস,ডাল কোনদিন ভাত,মাছ,ডাল আবার ভাত,ডিম,ডাল। গত ১ জুন দুপুর ১টা থেকে জিয়া হলে শুরু হয় কর্মসূচী চলে বিকেল ৩টা পর্যন্ত। প্রথম দিন খাবারের মেনুতে ছিলো ভাত, মাংস, ডাল। পর্যায়ক্রমে ২ ও ৩ জুন ভাত, ডিম, ডাল এবং ৪ জুন ভাত, মাছ, ডাল ছিলো খাবারের মেনুতে। নাম মাত্র ৫টাকায় পেট ভরে খাবার পেয়ে অনেকটা সন্তুষ্ট প্রকাশ করছে খেতে আসা অসহায় ও ভাম্যমান সাধারণ মানুষরা। ৫টাকায় খেতে আসা রিকশাচালক মোখলেস জানায়, নারায়ণগঞ্জ জেলায় যেখানে ৫টাকা দিয়া এক গ¬াস পানি কিন্না খাইতে হয় সেখানে ৫টাকা দিয়া পেট ভইরা দুপুরের খাবার খাইয়ে পারতাছে। এই ছোট ছোট পোলাপাইন গুলা আমাদের এই খাবারের ব্যবস্থা করছে। আজকা ভাত, মাছ, ডাল ৫টাকায় পাইছি। আজ ৪ দিন ধইরা এইখানে ৫টাকা দিয়া খাইতাছি। হোটেল গুলোতে এ পে¬ট ভাতই ১০টাকা আর এখানে ৫টাকা দিয়া দুইবারও খাইতে পারতাছি। আল্লাহ তাদের অনেক বড় করুক। রহিমা বেগম জানায়,এইখানে এই হোটেল হওয়ায় ৫টাকা দিয়া অনেক ভালা খাবার পেট ভইরা খাইতে পারতাছি।আল্লাহ এই হোটেলের মাইসসেগো আরো বেশি কইরা দেগ যাতে আমাগো মত অসহায় গরীবো কম টাকায় খাওয়ার সুযোগ কইরা দেয়। পঞ্চে তৃপ্তি সম্পর্কে মুক্তিতরীর প্রতিষ্ঠাতা ও সমন্বয়কারী জয় দত্ত বলেন, পঞ্চে তৃপ্তি বর্তমানে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের এক ভরসার নাম। সেই ভরসাটা টিকিয়ে রাখতে চাই। সকলের সহযোগিতা পেলেই এটা সম্ভব। মুক্ততরীর সকল সেচ্ছাসেবীরা চেষ্টা করে যাচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে। জয় আরো বলেন,আমাদের এই মুক্ততরী সংগঠনটি কলেজ ও বিশ্বাবিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে গঠিত।আমরা সকলেই শিক্ষার্থী।আমাদের নিজেদের ফান্ডের মাধ্যমে এই সংগঠনের বিভিন্ন সেবা ও অসহায় মানুষদের আত্মকর্ম সংস্থান মূলক কাজ করে যাচ্ছি।আমাদের সকল সদস্যদের ফান্ড দিয়েই এর সকল কার্যক্রম চলে।মুক্ততরীর দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আমরা ভিন্নধর্মী কাজ করার উদ্যোগ গ্রহন করছি।আর সেটা হলো পঞ্চে তৃপ্তি।নারায়ণগঞ্জ জেলায় অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আছে।তারা তাদের নিজেদের এরিয়া নিয়ে কাজ করছে।অনেকেই অসহায় ও গরীব মানুশদের মাঝে খাবার পেকেটের মাধ্যমে বিতরণ করে কিন্তু এ খাবার অনেকের পেট ভরে না বা অনেক কিছুই লাগে।তাই আমরা নিজে ফান্ড দিয়ে নাম মূল্যে ৫টাকা দিয়ে দুপুরে পেট ভরে খাবারের ব্যবস্থা করেছি।যার যতটুকু খাবারের প্রয়োজন হয় সে ততটুকু খাবার খেতে পারে। জয় দত্ত সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলেন,আমাদের ফান্ড দিয়ে আজ চারদিন ধরে ৫০ জন অসহায় ও সামর্থ্যহীনদের খাবারের আয়োজন করে যাচ্ছি।কোনদিন ৬০-৭০ জনেরও খাবার দিচ্ছি।এখানের চেয়ার টেবিল ভাড়া এনে কাজ করতে হচ্ছে।আমাদের ফান্ড সীমিত।জানি না কতদিন পর্যন্ত চালাতে পারবো।তবে আমাদের নারায়ণগঞ্জ জেলায় যাদের সামর্থ্য আছে, যারা বিত্তবান তারা যদি এগিয়ে আসে তাহলে আমাদের এই কর্মসূচী এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব।আমাদের ফেসবুক পেইজে মুক্ততরীর লিংক দেওয়া আছে এবং মোবাইল নাম্বার দেওয়া আছে কেউ যদি আমাদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে চায় আমাদের সাথে যোগাযোগ করার আহবান রইল এবং আমাদের এই কর্মসূচী জিয়া হল প্রাঙ্গণে প্রতিদিন দুপুর ১-৩ টা পর্যন্ত চলে তা সশরীরে এসে দেখারও অনুরোধ রইল। কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলো জয় দত্ত, রুবাইদ সায়মন, প্রীতম কুমার দাস, সোহেল রানা, চাঁদনী আক্তার, পুস্পিতা সাহা, উদয় দাস, জয় সাহা, অভি কর, তুষা, রাতুল, সবুজ সহ আরো অনেকে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930  

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © ২০২১ দৈনিক স্বাধীন বাংলাদেশ
Theme Customized BY Theme Park BD