দেড় কোটি টাকার অর্থ বাজেটের মাধ্যমে গোগনগর ইউপি ২০২১-২২ এর বাজেট ঘোষনা

সংবাদটি শেয়ার করুন:

শহর প্রতিনিধি:
রাস্তা ও যোগাযোগ,পয়নিষ্কাশন ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং মানব সম্পদ উন্নয়নকে প্রাধান্য দিয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের দেড় কোটি টাকার ২০২১-২২ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে। গতকাল রবিবার ( ৩০ মে ) সকাল ১১টায় ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এ বাজেট ঘোষনা করা হয়। প্যানেল চেয়ারম্যান মো.সৈকত হোসেন বেপারীর সঞ্চালনায় গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো.নূর হোসেন সওদাগরের সভাপতিত্বে ইউপি সচিব মো.মাহবুবুর রহমান ভুইয়ার উপস্থিততে বাজেটটি ঘোষনা করা হয়। বাজেট ঘোষনার প্রাক্কালে গোগনগর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো.নূর হোসেন সওদাগর বলেন, বিগত ১০ বছর আমাদের প্রয়াত চেয়ারম্যান অত্র ইউপির বাজেট ঘোষনা করেছেন। আজ তিনি নেই রয়েছি আমরা আস্থাভাজনরা। আমরা উনার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। নূর হোসেন আরো বলেন,আজ অত্র ইউপির আগামী অর্থবছরের জন্য ১ কোটি ৫০ লক্ষ ৩৯ হাজার ১৯৯ টাকার বাজেট ঘোষনা করছি। এখানে আমরা স্বাস্থ্য এবং রাস্তার উন্নয়নকে বেশী প্রাধান্য দিয়েছি। এছাড়াও পয়ঃ নিস্কাসন,বর্জব্যব্স্থাপনা,ভৌত অবকাঠামোসহ বিভিন্ন বিষয়ে উন্নয়নের জন্যও আমরা বাজেটে অর্ন্তভুক্ত করেছি।আমাদের ইউনিয়নে তেমন কোন শিল্প কারখানা নেই যে সেখান থেকে রাজস্ব আদায় হবে। আমরা শুধুমাত্র ইউনিয়নের ট্যাক্সের উপর নির্ভরশীল থাকতে হয়। তাই আমি ইউপি বাসীকে অনুরোধ করবো আপনারা সময়মত আপনাদের করটুকু আমাদের নিকট পৌছে দিবেন যেন তা দিয়েই আপনাদের উন্নয়নের জন্য আমরা চেয়ারম্যান-মেম্বারগন আপনাদের পাশে থাকতে পারি। বাজেট ঘোষনাকালে গোগনগর ৮নং ইউপি সদস্য মোঃতোফাজ্জল হোসেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নূর হোসেন সওদাগরকে উদ্দেশ্য করে ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়নের বিষয়ে বলেন,আমরা বহুকাল থেকেই গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদ একই রকম দেখে আসছি এর কোন উন্নয়ন হয়নি।এছাড়াও ইউনিয়নের কিছু জায়গা শিক্ষা দপ্তরে গিয়ে অন্তভূক্ত হয়েছে তা ফিরিয়েও আনা হচ্ছে না।তাই চেয়ারম্যানকে বলবো আমাদের সময়ও আছে ২- ৩ মাস তাই আমাদের ইউনিয়ন পরিষদকে ভেঙে উন্নয়ন করা হোক প্রয়োজনে আমরা যারা ইউপি সদস্য আছি তারা সবাই মিলে সহযোগিতা করবো। ইউপি সদস্যের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে নূর হোসেন সওদাগর বলেন,আমরা চেষ্টা করবো আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়নের।আর আমাদের যে জায়াগা শিক্ষা দপ্তরে গিয়ে অন্তভূক্ত হয়েছে তা মামলা করে ফিরিয়ে আনতে হবে। আমরা চেষ্টা করবো সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সাথে কথা বলে আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা ফেরত আনার। বাজেট ঘোষনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,ইউপি সদস্য মো.রফিকুল ইসলাম রফিক,তোফাজ্জল হোসেন কাবিল,মো,তোফাজ্জল হোসেন,মো.মোতালিব,মো.জুলহাস, মোক্তার হোসেন সুকুম,মো,দেলোয়ার হোসেন,মহিলা মেম্বার নাজমা আক্তার খোদেজা,বেবী আক্তার,তাহমিনা আক্তার সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *