ফতুল্লায় পাশবিক উপায়ে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা, স্বামী আটক

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফতুল্লা প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় স্ত্রীকে হাত বেধে জবাই করে হত্যা করেছে তার স্বামী। নিহতের নাম তানজিদা আক্তার পপি (২৫)। এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী হীরা চৌধুরী (৩০) কে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করে পুলিশ।
ঘটনাটি ঘটেছে গত 26 may সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে ফতুল্লা মডেল থানার পূর্ব লামাপাড়া এলাকায়।আটককৃত ঘাতক স্বামী হীরা চৌধুরী ফতুল্লা থানার পূর্ব লামাপাড়ার ওমর চৌধুরী তুহিনের পুত্র।
নিহত গৃহবধূ তানজিদা আক্তার পপি ফতুল্লার বক্তাবলীর রাজাপুরের মৃত আলী আশরাফের মেয়ে। তাদের ঘরে তুষাত (১০)ও তোয়াফ (৬) নামে দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ জানায়, বুধবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে হীরা চৌধুরী স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে জবাই করে হত্যা করে পাশের রুমে গিয়ে আত্নগোপন করে। পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতককে আটক করে। মৃত দেহ উদ্বার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়। ঘাতক স্বামী মাদকাসক্ত বলে জানা যায়। নিহত গৃহধুর মা জানায়, তেরো বৎসর পূর্বে উভয় পরিবারের পারিবারিক সম্মতিক্রমে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে শ্বশুড় বাড়ীর লোকজন নানা অজুহাতে বিভিন্ন সময় টাকা দাবী করে আসছিলো। মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে সব সময় চাহিদা পুরনের চেস্টা করতো। জমি বিক্রি করেও মেয়ের সুখের জন্য চাহিদা পুরন করেছেন বলে জানান তিনি। সর্বশেষ হত্যাকান্ডের আগের দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার দুপুরেও তার মেয়র শ্বশুড় বাড়ীতে গিয়ে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে এসেছেন। আজ বুধবার সকাল ৮ টার দিকে তাদেরকে ফোন করে জানানো হয় তার মেয়ে শহরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে রয়েছে। সেখানে গিয়ে তারা জানতে পারেন তার মেয়েকে জবাই করে হত্যা করেছে পাষন্ড স্বামী। ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক জাকির মাসুদ জানায়, ঘটনার সংবাদ পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত গৃহবধূর হাত বাধা রক্তাক্ত দেহ উদ্বার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। পরে পাশের রুমে আত্নগোপন করে থাকা ঘাতক স্বামীকে আটকসহ হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করেন। নিহত গৃহবধূ তানজিদা আক্তার পপিকে হাত বেধে গলায় ও গাড়ের পিছনে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে বলে তিনি জানান। ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। হত্যাকারীকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *