বন্দরে বোনকে ইভটিজিং করার প্রতিবাদ করায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় ৯ জন আহত

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্বাধীন বাংলাদেশ রিপোর্ট:
বন্দরে বোনকে ইভটিজিং করার প্রতিবাদ করায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় ৯ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত শনিবার ২২ মে সন্ধ্যা ছয় ঘটিকায় সময় বন্দর ইউনিয়নের দক্ষিণ কলাবাগ এলাকায় গিয়ে রাজু গ্যাং এর চিহ্নিত কিশোর অপরাধীরা এক কিশোরীকে উত্যক্ত করে। এ সময় উক্ত কিশোরীর ভাই নাঈম এর প্রতিবাদ করলে বিবাদী বন্দর হাফেজী বাগ এলাকার দিপু মিয়া়র ছেলে সন্ত্রাসী মিলন,রনি মিয়ার ছেলে সন্ত্রাসী রায়হান, সানি, সোলায়মান, সাইদুর সহ অজ্ঞাত আরও ৮/১০ জন মিলে নাঈম কে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ সহ কিল ঘুষি মারতে থাকে। এসময় এলাকার প্রতিবেশী আজহার, শুভ, হাসান, রাব্বি, বাবুর্চি নূর হোসেন,সহ আরো দুইজন মহিলা এগিয়ে আসলে তাদেরসহ মোট ৯ জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে কিশোর অপরাধীরা। আহতদের মধ্যে বাবুর্চি নূর হোসেনসহ এক যুবকের অবস্থা গুরুতর। কিছুদিন পূর্বেও কিশোর গ্যাং সন্ত্রাসী রায়হান কে বন্দর থানা পুলিশ একটি মামলায় গ্রেফতার করতে গেলে বন্দর হাফেজী বাগ এলাকায় থানা পুলিশের সেই টিম এর সাথে রায়হান এর পিতা রনির ধস্তাধস্তি হয় পরবর্তীতে পুলিশ সন্ত্রাসী রায়হান সহ তার পিতা রনিকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছিল। বন্দরে পর্দার আড়ালে থাকা কিশোর গ্যাং সন্ত্রাসীদের মদদ দাতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ার কারণে ক্রমশই কিশোর সন্ত্রাসীরা বিপথগামী উঠছে এবং একের পর এক অপরাধ করে যাচ্ছে। এ বিষয়ে আহত নাঈম এর ভাই শাকিল বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *