নারায়ণগঞ্জ জেলা ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের মানববন্ধন

সংবাদটি শেয়ার করুন:

স্বাধীন বাংলাদেশ রিপোর্ট:
সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জ জেলা ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন আয়োজনে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।
গত শনিবার (২২ মে) সকালে চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে অনুষ্ঠিত হয় এ মানববন্ধন।এ সময় মানববন্ধনে উপস্থিত সাংবাদিকরা রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন। জেলা ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি হাবিবুর রহমান শ্যামলের সভাপতিত্ব ও সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম সবুজের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ্ আলম, সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান বাদল,সাধারণ সম্পাদক শরীফউদ্দিন সবুজ, জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম,সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন স্মিথ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন পন্টি প্রমুখ। খন্দকার শাহ আলম বলেন,অন্যায়ভাবে রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা করা হয়েছে এবং গ্রেফতার করা হয়েছে। এটার পিছনে অনেক ইতিহাস রয়েছে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করার জন্যে এটা একটা অপকৌশল। ওরা জানে না কোনোকালে কেউ সাংবাদিকের কলম বন্ধ করতে পারেনি। স্বাস্থ্যখাতে হাজার হাজার কোটি কোটি টাকা লুটপাট করে ভাগাভাগি করে স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ তার দপ্তরের কর্মকর্তারা নিয়ে গেছে। সে বিষয়ের অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করার কারণেই আজকে রোজিনা হেনস্তার শিকার।আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’তিনি আরো বলেন, ‘কোনো সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা, মিথ্যা মামলা, অন্যায় অবিচার করে থাকলে আমরা বসে থাকবো না।আন্দোলনের মাধ্যমে এবং সাংবাদিকরা লেখনীর মাধ্যমে তার জবাব দিবে। প্রকৃত সন্ত্রাসীর চেহারা, লুটেরার চেহারা,জুলুমবাজের চেহারা পুরো বিশ্ববাসীর কাছে উন্মোচন করা হবে। আমরা অবিলম্বে নিঃশর্তে রোজিনার মুক্তি এবং এই মিথ্যা মামলা প্রত্যহারের দাবি জানাচ্ছি।’ দৈনিক ইয়াদ পত্রিকার প্রকাশক সিনিয়র সাংবাদিক তোফাজ্জল হোসেন বলেন,স্বাস্থ্যমন্ত্রী হচ্ছে একজন হেজড়া।তিনি হেজড়া না হলে নিজেদের অপকর্ম ডাকতে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছে।আর নারায়ণগঞ্জের সবচেয়ে বড় দূর্নীতিবাজ ও চোর হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন।যারা নারায়ণগঞ্জে সাংবাদিকতা করেন তারাও রোজিনার মত যান।রিকর্ড করেন তাহলে আপনাদের ভাগ্যও রোজিনার মত সৌভাগ্য হবে। মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতি শহীদুল্লাহ রাসেল, ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম, ফতুল্লা মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি আনিসুজ্জামান অনু,জেলা ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি তাপস সাহা সহ সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দরা।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *