ফতুল্লার বক্তাবলীতে সাত সদস্যের ডাকাত দল গ্রেফতার

সংবাদটি শেয়ার করুন:

ফতুল্লা প্রতিনিধি :

ফতুল্লার বক্তাবলীতে সাত ডাকাত কে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে ইট ভাটার শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল)  ভোর রাতে ফতুল্লা মডেল থানার বক্তাবলী চর রাজাপুরের ধলেশ্বরী ব্রিক ফিল্ড নামক ইট ভাটায় ডাকাতি কালে তাদের কে আটক করে পুলিশ দিয়েছে ইট ভাটার শ্রমিকরা।এ সময় তাদের নিকট থেকে একটি ধারালো ছুরি উদ্বার করাা হয়।এ ঘটনায় ইট ভাটার ম্যানেজার মোঃ আদিল বাদী হয়ে  ডাকাতির চেস্টার অভিযোগ এনে শুক্রবার দুপুরে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।আটককৃতরা হলো ফতুল্লা থানার শাসনগাও প্রাইমারি স্কুল সংলগ্ন গনি মিয়ার ভাড়াটিয়া তমিজ প্রামানিকের পুত্র মোঃ মোতাব্বির ওরফে মাসুম (১৯), একই থানার মুসলিমনগর আমেনা সুপার মার্কেট সংলগ্ন হালিম মিয়ার ভাড়াটিয়া আবুল কালামের পুত্র  মোঃ সুইট ওরফে মাহিম (১৮), কাশীপুর মধ্যপাড়ার মোশাররফ হোসেনের পুত্র মোঃ মেহেদী হাসান ওরফে শান্ত (১৮), মুসলিমনগর সাত ভাই মার্কেট সংলগ্ন আইনুল ইসলামের পুত্র শিপন (১৮), কাশিপুর জামান ফার্মেসী গলির হাবিবুরের ভাড়াটিয়া মৃত বাবুল মিয়ার পুত্র সাইফুল (১৯), একই এলাকার খোকন সরদারের ভাড়াটিয়া সরব আলীর পুত্র মোঃ হৃদয় শেখ (১৮) ও একই বাড়ীর ভাড়াটিয়া মোঃ বাবুল মোল্লার পুত্র নয়ন মোল্লা (১৮)।
বাদীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়,শুক্রবার দিবাগত ভোর রাত সাড়ে ৪ টার দিকে আটককৃত সাত জন সহ ১০/১১ জনের একটি দল অস্ত্র- সস্ত্র নিয়ে বক্তাবলী চর রাজাপুরস্থ ধলেশ্বরী ব্রিক ফিল্ড নামক ইট ভাটায় প্রবেশ করে নিরাপত্তা রক্ষী মোঃ হোসেন (৪৫)কে ঘিরে ধরে এবং ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাতের চেস্টা করে। এ সময় নিরাপত্তারক্ষী ডাক-চিৎকার করলে ইট ভাটার কর্মরত শ্রমিকেরা ঘটনাস্থলে ছুটে এসে চারদিক থেকে ডাকাত দলকে ঘিরে ফেলে। অবস্থা বেগতিক দেখে ১০/১১ জনের ডাকাত দল পালিয়ে যাবার সময় শ্রমিকরা ৭ ডাকাত কে ধরে ফেলে। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে আটক করে ফতুল্লা থানায় নিয়ে আসে। এ সময় তাদের নিকট থেকে একটি অত্যাধুনিক সুইচ গিয়ার তিনটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ রকিবুজ্জামান জানান, ” অভিযোগ পেয়েছি। তবে  আমাদের ধারণা আটকৃতরা সম্ভবত ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য “। অভিযোগ তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *