জালকুড়িতে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর বড় বোনকে নির্যাতন ও শ্লীলতাহানী, মামলা

সংবাদটি শেয়ার করুন:

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি:
স্ত্রীর যৌতুক মামলায় শর্তসাপেক্ষে জামিনে এসে ফের যৌতুক দাবি করে না পেয়ে স্ত্রীর বড় বোনকে নির্যাতন ও শ্লীলতাহানী করেছে ছোট বোনের স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন। সিদ্ধিরগঞ্জে জালকুড়ি এলাকায় গত ২৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটলেও ২৬ এপ্রিল সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় স্বামীসহ শ^শুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা (নং-৩৬) দায়ের করেছেন ভুক্তভুগীর ছোট বোন হোসনে আরা আক্তার। অভিযুক্তরা হলো- জালকুড়ি দক্ষিণপাড়া এলাকার রাসেল (৩৫), তার পিতা শফিউদ্দিন, বড় বোন জামাই রুবেল (৪৫), কাদির, সানোয়ার সহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জন।
ভুক্তভুগীর পরিবার ও মামলা সূত্রে জানা যায়, মাস খানেক আগে ৫ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে স্ত্রীকে নির্যাতন করায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন গৃহবধু হোসনে আরা আক্তার (২১)। সেই মামলায় স্বামী ও শ^শুর বাড়ির লোকজন শান্তিপুর্ণভাবে ঘর-সংসার করবে শর্তে জামিনে মুক্তি লাভ করে স্বামী রাসেল (৩৫)। কিন্তু স্বামী ও শ^শুর বাড়ির লোকজন আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। যার যেরে কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে স্ত্রীর বড় বোনকে নির্যাতন করে ডান হাত ভেঙে দেয় হোসনে আরার শ^শুর বাড়ির লোকজন।
ভুক্তভুগীর স্বামী আল-আমিন বলেন, আমার শ্যালিকাকে বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য তার স্বামী রাসেল শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতে থাকে। আমরা আইনের আশ্রয় নিলে তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। যার ধারাবাহিকতায় আমার বাসায় অনধীকার প্রবেশ করে আমার স্ত্রী রোকসানা আক্তারকে নির্মমভাবে নির্যাতন করে এবং শ্লীলতাহানী করে অভিযুক্তরা। এতে আমার স্ত্রীর ডান হাত ভেঙে গেছে। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে। আমি প্রশাসনের কাছে এমন নারী নির্যাতনের কঠোর শাস্তি দাবি করছি। এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মোখলেছ জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের করেছেন অভিযুক্ত রাসেলের স্ত্রী। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *