লোক দেখানো আ’লীগার সিরাজ মন্ডলের সাথে রয়েছে বিএনপি’র বিরাট চেইন ## বিএনপি’র নেতাদের সেল্টার, বিএনপি’র আমলে প্রচুর টাকার মালিক সন্দেহের কারণ

সংবাদটি শেয়ার করুন:

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সিদ্ধিরগঞ্জের সাবেক বিতর্কিত কাউন্সিলর ও জেলা বঙ্গবন্ধু ফউন্ডেশনের সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মন্ডল নিজেকে আ’লীগের লোক হিসাবে পরিচয় দিয়ে আ’লীগের বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করলেও নেপথ্যে রয়েছে স্থানীয় বিএনপি নেতাদের সেল্টার প্রদান। লোক দেখানো আ’লীগ এই সিরাজ মন্ডলের সাথে রয়েছে বিএনপি’র বিরাট চেইন। আর তাই বর্তমানে তার আশপাশে ঘিরে রয়েছে আ’লীগ থেকে বিএনপি’র লোকই বেশী। আর এইসকল বিএনপি’র লোকদের সেল্টার দিচ্ছেন তিনি। অভিযোগ রয়েছে বর্তমান সময়টা আওয়ামীলীগের তাই সে আ’লীগার সেজেছে। কিন্তু তার আসল সম্পর্ক বিএনপি’র বড় বড় নেতাদের সাথে। যেকোন সময় তিনি ভোল পাল্টো আবারো বিএনপি সেজে যেতে পারেন। তার পারিবারিক অনুষ্ঠানে বিএনপি’র সাবেক সংসদ আসা, বিএনপি’র নেতাদের বিভিন্ন অনুষ্টানে সিরাজ মন্ডলের যাওয়াই প্রমান করে বিএনপি’র সাথে সিরাজ মন্ডলের সু-সম্পর্কের কথা। এছাড়াও আজ তিনি যে কোটি কোটি টাকার মালিক, তার এই আয়ের উৎসই ছিলো বিএনপি সরকারের আমলে। অর্থাৎ আজকে সিরাজ মন্ডল যে জমি-জমা ব্যাংক ব্যালেন্স, তেলের পাম্প ইত্যাদি হয়েছে ২০০১ সালের পর থেকে বিএনপি’র আমলে বড় বড় নেতাদের সাথে সুসম্পর্ক করে। আজ সে আ’লীগ সেজেছে তার অর্জিত সেই সকল সম্পদ রক্ষা করার জন্য।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সিরাজ মন্ডলের সম্পর্ক আ’লীগের চেয়ে বিএনপিতে বেশী। তার আপন ভাই শ্রমিকদলের শীর্ষ নেতা। আরেক ভাইয়ের বিরুদ্ধে জামাতের সেল্টারদাতার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ভাতিজা সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি খন্দকার মামুনের সাথেও তার সুসম্পর্ক রয়েছে। ৬নং ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি আক্তারের সাথেও তার সম্পর্ক রয়েছে। বর্তমান সময়ে জেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি তৈমুরের অনুরোধে আক্তারকে তার পাম্পে মোটা অংকের বেতনের চাকরি দিয়ে সহায়তা করছে। স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতারা টাকার সমস্যা কিংবা পুলিশের সমস্যা, কিংবা মামলার সমস্যায় পড়লে সিরাজ মন্ডল নিজের অর্থ ব্যয় করে তাদেরকে সহায়তা করে থাকেন বলে বিএনপি নেতাদের নিকট এটা জনশ্রুতি আছে। বর্তমান সময়ে সিরাজ মন্ডলের সামনে থেকে ৬নং ওয়ার্ড শ্রমিকদলের সিনিয়র সহ-সভাপতিকে গ্রেফতার, শ্রমিকদল নেতা ইসমাইলকে গ্রেফতারের ফলে প্রশাসনের নিকট নজরদারীতে আছে সিরাজ মন্ডল। সিরাজ মন্ডলের সাথে বিএনপি’র কোন কোন নেতাদের সাথে সম্পর্ক রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে বলেও গোপন সুত্রে জানা গেছে। এদিকে গতকাল কয়েকজন স্থানীয় আ’লীগ নেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, সিরাজ মন্ডল প্রকৃত পক্ষে আ’লীগার। কারন, তিনি যখন আ’লীগে আসেন তখন আ’লীগের সু সময়। বিএনপি’র আমলে তিনি বিএনপি’র দ্বারা কোন মামলা- হামলার শিকার হননি। বিএনপি’র আমলে তিনি ছিলেন শাহেনশাহ। তিনি বিএনপি-জামাতের বিভিন্ন কর্মসূচীতে প্রচুর টাকা দিয়ে কর্মসূচী সফল করেছেন। সে হিসাবে তিনি আ’লীগার। যা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন গনমাধ্যমের তালিকায় তার নাম এসেছে। যদিও তিনি তা বার বার অস্বীকার করে থাকেন। কয়েকজন আ’লীগের নেতা বলেন. সিরাজ মন্ডল আজ কোটি কোটি টাকার মালিক। তার এই টাকা বিএনপি’র আমলে বেশী অর্জিত হয়েছে নাকি আ’লীগের আমলে বেশী অর্জিত হয়েছে তা তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে তার সাথে বিএনপি’র কোন বড় বড় নেতার সম্পর্ক রয়েছে। তারা মন্তব্য করে বলেন, আজকে সিরাজ মন্ডল যে বাড়ী-গাড়ী পাম্পের মালিক হয়েছে এই টাকার বেশীর ভাগই অর্জিত হয়েছে ২০০১ সালের বিএনপি’র আমলে। বিএনপি’র বড় বড় সাংসদের সাথে সুসম্পর্ক করে তিনি সুবিধা নিয়ে টাকা কামিয়েছেন। যার ফলে তার বিভিন্ন পারিবারিক অনুষ্টানে বিএনপি’র সাবেক সাংসদ গিয়াস উদ্দিনসহ অনেকেই এসেছিলেন। অনেকে আবার তীর্যক মন্তব্য করে বলেন, সিরাজ মন্ডল সকালে আ’লীগ রাতে বিএনপি সাজেন। তিনি আসল রাজনীতি করেন। তিনি সবার সাথে রস লাগিয়ে রাখেন। কারন, তিনি হলেন সুবিধাবাদী। তিনি জানেন, কোন দল সারা জিবন ক্ষমতায় থাকে না। তাই যদি আ’লীগ পল্টিমারে তখন যেনো সিরাজ মন্ডলের কোন বেগ পেতে না হয় সেজন্য তিনি বিএনপি নেতাদের সাথেও সু-সম্পর্ক রজায় রেখে চলেন। তাছাড়া হেফাজতের সাথেও সিরাজ মন্ডলের সুসম্পর্ক রয়েছে বলেও তারা জানান। আগামীকাল সিরাজ মন্ডলের সাথে বিএনপি’র আরো নেতাদের সুম্পর্ক ছবিসহ প্রকাশ করা হবে। তাই পাঠকদেরকে দৈনিক স্বাধীন বাংলাদেশে চোখ রাখার অনুরোধ করা হচ্ছে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *