সর্বাত্মক লকডাউনে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ কঠোর অবস্থানে

সংবাদটি শেয়ার করুন:

শহর প্রতিনিধি:
সরকার ঘোষিত করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ‘সর্বাত্মক লকডাউনের’দ্বিতীয় দিনকে নারায়ণগঞ্জ শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে সাধারণ মানুষকে বাহিরে বের হতে নিরুৎসাহিত করতে এবং সরকারের সর্বাত্মক লকডাউন সফল কাজ করে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ। বৃহস্পতিবার(১৫ এপ্রিল)সকাল থেকেই মাঠে নামে পুলিশ। পুলিশের চেকপোস্টে পুলিশ যান ও পথচারী চলাচল নিয়ন্ত্রণে তৎপর দায়িত্বে থাকার পরও ১ম দিনের তুলনায় নারায়ণগঞ্জ শহরে অটো,মিশুক,সিএনজি ও প্রাইভেট কারের সমাহার দেখা যায়।একটু পর পর নারায়ণগঞ্জ শহরের অন্যতম ব্যস্থ সড়ক চাষাড়া মোড়ে বাধে যানজট। যা নিরসনে পুলিশ প্রশাসন খাচ্ছে হিমশিম।অথচ গতকাল থেকে সরকার ঘোষিত করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ‘সর্বাত্মক লকডাউনে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কোন গাড়ী এবং মানুষ বাহিরে বের না হতে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও নারায়ণগঞ্জবাসী যেনো সরকারের লকডাউনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে রাস্তায় চলাচল করছে। সকাল থেকেই একটু ঢিলেঢালাভাবে পুলিশের কার্যক্রম চললেও সময় গড়াতেই শহরে গাড়ীর সংখ্যা বেড়ে যায়।প্রতিটি রিকশা,অটো,মিশুক,সিএনজি ও প্রাইভেট কারকে জিজ্ঞাসা করা হয় কোথায় যাচ্ছে এবং মুভমেন্ট পাশ সাথে আছে কিনা।যারা মুভমেন্ট পাশ দেখাতে সক্ষম হয় এবং জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ আসলে তাদের ফেরত পাঠানো হয়।যারা আইন মানতে বাধ্য না হয় তাদের থেকে করা হয় জরিমানা।এর ফলে সড়কে সৃষ্টি হয় যানজটের। অন্যদিকে গতকাল নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার মোঃজায়েদুল আলম বলেন, আমরা ৩০টি পয়েন্টে চেকপোস্ট বসিয়েছি।মোবাইল টিম চালু আছে।আমরা যেকোন মূল্যে যাত্রী বহনকারী বাস এক জেলা থেকে আরেক জেলায় যায় তা আমরা রোধ করবো।নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে কাউকে বাহিরে যেতে এবং অন্য জেলা থেকে নারায়ণগঞ্জের ভিতরে প্রবেশ করতে দিবো না।শুধুমাত্র কলকারখানা খোলা থাকবে।জরুরি যে সেবাগুলো সেগুলো চালু থাকবে।যানবাহনের ক্ষেত্রে মালবাহী যানবাহন যেগুলো সেগুলো চালু থাকবে।পন্য পরিবহন গাড়ী চালু থাকবে কিন্তু কোন প্রকার যাত্রী পরিবহণ চালু থাকবে না ফেরিতে।আপনেরা জানেন বন্দর কলকারখানা যে পণ্যবাহী গাড়ী সেগুলো সদর পুলিশ প্রশাসন ও নৌ পুলিশ প্রশাসন দেখবে।এছাড়া কোন মানুষ ফেরি পারাপার করবে না। লকডাউনে আমরা কেউ যেনো বাসার বাহিরে না যাই।সরকার কর্তৃক যে বিধিনিষেধ দিয়েছে সকলকে আহবান জানাবো এই বিধিনিষেধ পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পালন করি।যে এ বিধিনিষেধ ভঙ্গ করবে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।আমরা কারো প্রতি নির্দ্বয় হতে চাই না।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *