শীতলক্ষ্যায় লঞ্চ ডুবির ঘটনায় অজ্ঞাত আসামী করে বন্দর থানায় মামলা

সংবাদটি শেয়ার করুন:

বন্দর প্রতিনিধি:
নারায়ণগঞ্জ শীতলক্ষ্যা নদীতে কোষ্টারের ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে ৩৪ জনের প্রানহানী ও ক্ষতি সাধনের ঘটনায় বন্দর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জ বিআইডব্লিউটিএ (ভারপ্রাপ্ত) পরিচালক বাবু লাল বৈদ্য বাদী হয়ে অজ্ঞাত নামা আসামী করে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন তিনি। যার মামলা নং- ৬(৪)২১ তাং- ৬-৪-২১ইং ধারা- ২৮০/ ৩০৪/ ৩৩৭/ ৩৩৮/ ৪২৭/ ৪৩৭ পেনাল কোড ১৮৬০। ইনল্যান্ড শিপিং আর্ডন্যান্স ১৯৭৬ এর ৭০ ধারা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ৪ এপ্রিল বিকেলে ৫টা ৫৬ মিনিটে নারায়নগঞ্জ লঞ্চঘাট থেকে এম. এল সাবিত আল হাসান (এম নং-১০৩৮৩) নামে একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ৪৫ জন যাত্রী নিয়ে মুন্সিগঞ্জ লঞ্চ ঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পরে যাত্রীবাহী লঞ্চটি র্নিমানাধীন ৩য় শীতলক্ষা সেতুর সামনে আসলে ওই সময় মালবাহী কার্গো জাহাজ পিছন দিক থেকে অবৈধ ভাবে ধাক্কা দিয়ে যাত্রীবাহী লঞ্চটিকে ডুবিয়ে দেয়। লঞ্চ ডুবির ঘটনায় ১৫ জন পুরুষ, ১৭ জন মহিলা ও ২ জন শিূ হিত হয় এবং বাকিরা সাঁতার কেটে তীরে উঠতে সক্ষম হয়। দূর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে বিআইডব্লিউটিএ এর তত্বাবধানে উদ্ধারকারী দল দীর্ঘ ১৮ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে দূৃঘটনা কবলিত স্থান থেকে ৩৪ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে। নিহতরা হলো মুন্সিগঞ্জ মদ্য কোন্ডাগাও এলাকার মতিউর রহমান কাজীর ছেলে ইউসুফ কাজী (৫২) ঢাকা মিরপুর ১১ এর বাসিন্দা সিরাজুল ইসলামের ছেলে সোহাগ হাওলাদার (২৩) মুন্সিগঞ্জ সদরের দক্ষিন ইসলামপুর এলাকার নুরুল আমিনের ছেলে তানভরি হোসেন হৃদয় (১৬) মালপাড়া এলাকার সিরাজ মিযার ছেলে রিজভী (২০) মুন্সিগঞ্জ কলাপাড়া এলাকার হারাধর সাহার ছেলে াাকাশ সাহা (১২) মুন্সিগঞ্জ র্কোটগাও এলাকার পখিনা (৪৫) একই এলাকার বিথী (১৮) ও তার এক বছরের মেয়ে আরিফা দোলা বেগম (৩৪) মুন্সগঞ্জ সদর এলাকার আক্তার (২৪) মুন্সিগঞ্জ মোল্লাকান্দির সোলেমান বেপারী (৬০) ও তার স্ত্রী বেবী বেগম (৫৫) মুন্সীগঞ্জ মালপাড়া এলাকার সুনিত সাহা (৪০) তার ছেলে বিকাশ (২২) আকাশ সাহা (১২) মুন্সীগঞ্জ সদরের প্রতিমা শর্মা ((৫৩) মুন্সগিঞ্জের মোল্লাকান্দির চর কিশোরগঞ্জের শামসুদ্দিন (৯) ও তার স্ত্রী রেহেনা বেগম (৬৫) বরিশালের উটরা উজিরপুর এলাকার হাফিজুর রহমান (২৪) তার স্ত্রী তাহমিনা (২০) এক বছরের শিশুপুত্র আব্দুল্লাহ মুন্সীগঞ্জ দক্ষিন কেওয়ারের নারায়ণ দাস (৬৫) তার স্ত্রী পার্বতী দাস (৪৫) নারায়নগঞ্জ বন্দরের কল্যান্দী এরাকার আজমির (২) মুন্মগিঞ্জ সদরে শাহ আরম মৃধা (৫৫)একই এলাকার মহারানী (৩৭) ঢাকা শনিআখড়া এলাকার আনোয়ার হোসেন (৪৫) তার স্ত্রী মাকসুদা (৩০) তাদের ৭ মাস বয়সী মেযে মানসুরা, মুন্সীগঞ্জ সদরের ছাউদা আক্তার লতা (১৮) শরিয়তপুর নড়িয়া এলাকার আব্দুল খালেক (৭০) ঝালকাঠী কাঠারিযা এলাকার জিবু (১৩) মুন্মীগঞ্জের কাদিজা বেগম ৯৫০) বন্দরে দক্ষিন সাবদী এলাকার নুরু মিয়ার ছেলে নযন (১৯) ও সাদিয়া (১১) মুন্মীগঞ্জ মদ্র কোন্ডাগাও এলাকার মতিউর রহমান কাজী ছেরে ইউসুফ কাজী, ঢাকা মিরপুর ১১ এলাকার সিরাজুল ইসলামের পুত্র সোহাগ হাওলাদার (২৩) মুন্সিগঞ্জের সদরের দক্ষিন ইসলামপুর এলাকার নুরুল আমিনের ছেলে তানবীর হোসেন হৃদয় (১৬) মালপাড়া এলাকার সিরাজ মিযার ছেলে রিজবী (২০) । পরে নিহতের স্বজনদের কাছে মৃতদেহ গুলো হস্তান্তর করা হয়।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *