ছেলের ঋণ পরিশোধের জন্য বাবার সম্পত্তি নিয়ে গেল ব্যাংক

সংবাদটি শেয়ার করুন:

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:
ছেলের ঋণ পরিশোধের জন্য বাবার সম্পত্তি নিয়ে গেল ব্যাংক। ঘটনাটি ঘটেছে নারায়ণগঞ্জের ইসলাম গ্রুপের এমডি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলামের সাথে। সোনালী ব্যাংক নারায়ণগঞ্জ কর্পোরেট শাখায় মনিরুল ইসলামের বড় অংকের ঋণ ছিলো। বছর বছর ঋণের পরিমাণ বাড়তে থাকায় তা কোন মতে পরিশোধ করতে পারছিলেন না তিনি। অবশেষে তাকে দায়মুক্ত করার জন্য নিজের সম্পত্তির পাশাপাশি বাবার সম্পত্তি নিয়ে নিল ব্যাংকের ।জানা গেছে, ২০০৯ সনে সোনালী ব্যাংক নারায়ণগঞ্জ কর্পোরেট শাখা হতে ৪৮ কোটি ঋণ নেন ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম । একপর্যায়ে এ ঋণ সুদ-আসলে বেড়ে শতকোটির ওপর দাঁড়ায়। মনিরুল ইসলামের নিজের যতো সম্পত্তি ছিলো তা দিয়ে কোনভাবেই এ ঋণ পরিশোধ করতে পারছিলেন না। অবশেষে চলতি মাসে তাঁর বাবার সম্পত্তি ঋণের সাথে অ্যাটাচমেন্ট করার জন্য সোনালী ব্যাংকে আবেদন করেন।আবেদনে তিনি উল্লেখ করেন মেসার্স মুন নিটওয়্যারর্স, হুমায়রা নিট ফ্রেবিক্স, এইচএস ফ্যাশন ও মেসার্স মিডিয়া গার্মেন্টস এর মটগেজকৃত সম্পত্তি কম বিধায় ব্যাংকের স্বার্থে আরও অতিরিক্ত সম্পত্তি অ্যাটাচমেন্ট করা প্রয়োজন। সর্বমোট তিন হাজার চারশ’ আটাশি শতাংশ সম্পত্তি অ্যাটাচমেন্ট করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা গেল।ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘সোনালী ব্যাংকে আমার যা ঋণ ছিলো তা এতোই বেড়ে গিয়েছিলো তা নিজের সম্পত্তি দিয়ে পরিশোধ করা দুরূহ হয়ে পড়েছিলো। অনেক চেষ্টা করেছিলাম একাই এই ঋণ পরিশোধ করার। কিন্তু ব্যবসায় অনবরত লোকসান ও পারিপার্শ্বিক নানা কারণে সেটা সম্ভব হয়নি। অবশেষে পৈত্রিক কিছু সম্পত্তি ব্যাংকের ঋণে অ্যাটাচমেন্ট করে আপাতত এ ঋণের বেড়াজাল থেকে উদ্ধার হয়েছি।’তিনি আরও বলেন, ‘আমি ব্যবসায়িক পরিবারের ছেলে। আল্লাহর রহমতে আমি আবার ঘুরে দাঁড়াবো। আমি দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ ব্যাংকের সব দায়-দেনা শোধ করে আমার ও আমার বাবার সব সম্পত্তি পুনরুদ্ধার করবো ইনশাল্লাহ।’


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *