রুপগঞ্জে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত-৩, আহত- ২০

সংবাদটি শেয়ার করুন:

স্টাফ রিপোর্টার:
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার গোলাকান্দাইল মাহনা এলাকার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে মোটরসাইকেলকে বাঁচাতে গিয়ে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত তিন ও আহত হয়েছেন অন্তত ২০জন। গত সোমবার (২৯মার্চ) সকাল ৮ টার দিকে উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের মাহনা বটের চারা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ ঘটনাটি ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নরসিংদী থেকে ঢাকামুখী (ঢাকা-মেট্রো-ব-১৪-৩১৭৬) যাত্রীবাহী বাস ও অপর আরেকটি সবুজ বাংলা নামের (ঢাকা-মেট্রো-ব-১৫-১০০৩) যাত্রীবাহী বাস ঢাকা থেকে নরসিংদী যাওয়ার পথে হঠাৎ একটি মোটরসাইকেল গাউছিয়া থেকে মাহনা বটের চারা এলাকার ভিতরে যাওয়ার জন্য রাস্তা পার হলে বাস দুটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলে সবুজ বাংলা বাসের চালক আকাশ (৪৩) নিহত হয়। চালক আকাশ হলেন, নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার জঙ্গলী শিবপুর এলাকার মৃত সমিরউদ্দিনের ছেলে। এছাড়া হাসপাতালে যাওয়ার পথে মারা যান নরসিংদী থেকে আসা বাস যাত্রী সাঈদ(৩৫)। তিনি হলেন, সোনারগাঁও উপজেলার বারদী এলাকার বাসিন্দা। নরসিংদী থেকে আসা নিহত বাস চালকের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। আহতরা হলেন, নরসিংদী জেলার মাধবদী উপজেলার পাথরপাড়া এলাকার আব্দুল লতিফের ছেলে আব্দুল কাদের, রূপগঞ্জ উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের গুতুলিয়া এলাকার হাবিবুর রহমান, আমির হোসেন (৩৫), নাসির মিয়া (৩৫), শাহাবুদ্দিন মোল্লা। বাকিদের এখন পর্যন্ত পরিচয় পাওয়া যায়নি। কাঞ্চন ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ শাহ-আলম বলেন, খবর পেয়ে কাঞ্চন ফায়ার সার্ভিস এবং কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম চালায়। এসময় আকাশ নামে এক বাস চালককে নিহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে হতাহতের সংখ্যা আরো বেশি হতে পারে। লাশ কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *