বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে সাজনু’র উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালি

সংবাদটি শেয়ার করুন:

নিজস্ব প্রতিনিধি:
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের আয়োজনে বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) বিকেলে শহরের উত্তর চাষাড়া থেকে র‌্যালি বের হয় সংগঠনের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া সাজনুর নেতৃত্বে। পরে র‌্যালিটি শহরের চাষাঢ়া থেকে জাতীয় পতাকা, দলীয় পতাকা, বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন হাতে বিশাল একটি মিছিল করে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে দুই নম্বর রেলগেইট এলাকায় আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এসে সমাপ্ত হয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।
এসময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনুর সভাপতিত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড.আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদ বাদল বলেন, আজকে র‌্যালি প্রমান করে দিছে নারায়ণগঞ্জের রাজপথ শামীম ওসমানের রাজপথ, নারায়ণগঞ্জের রাজপথ আওয়ামী লীগের রাজপথ, নারায়ণগঞ্জের রাজপথ শেখ হাসিনার রাজপথ। কারন নারায়ণগঞ্জের মাটি আওয়ামী লীগের ঘাটি।আর বিএনপির রাজনীতি হচ্ছে জ্বালাও পোড়াও রাজনীতি।তারা মানুষদের অত্যাচার নির্যাতন করে।তাই তাদের কেউ ভোট দেয় না।আর বঙ্গবন্ধুর হত্যার সাথে জড়িত জিয়াউর রহমানের বীরমুক্তিযোদ্ধার খেতাব ছিনিয়ে নেওয়া উচিত। নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড.খোকন সাহা বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার বিচার করেছিলো।কিন্তু আওয়ামী লীগকে বিকৃত করার লক্ষ্যে ২০০১ জোট সরকারের আমলে উঠে পড়ে লেগেছিলো।প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশকে ডিজিটাল করার লক্ষ্যে কাজ করেছে।রাস্তাঘাট, ব্রীজ,নারী উন্নয়ন সহ একাধিক উন্নয়ন হয়েছে।এমনকি পদ্মা সেতুর মত সেতু কোন দেশের থেকে সাহায্য ছাড়ায় আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করেছে।যারা আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা তাদেরকে দায়িত্ব দেওয়া হোক। আগামীতে দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাদের সামনের কাতারে আনতে হবে। ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে যারা মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ না করে, মুক্তিযুদ্ধের লেবাস নিয়ে নারায়ণগঞ্জ শহরে লুটের রাজত্ব কায়েম করেছে তাদেরকে চিহ্নিত করতে হবে। তাদেরকে আমরা চিহ্নিত করবো। কাদের আঙুল ফুলে বটগাছ হয়েছে, বটগাছ থেকে জোড়া বটগাছে রূপান্তরিত হয়েছে; সেগুলো আমাদের উপলব্ধি করতে হবে। সভাপতির বক্তব্যে শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু বলেন, আজ বাংলার স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনকের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আনন্দ র‌্যালি হয়েছে।যেই নেতা না থাকলে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা আসতো না।যার বর্জ্য কন্ঠে ভাষন না দিলে বাংলার মানুষেরা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়তো না।যেই।নেতার বাংলার মানুষের অধিকার আদায়ে জীবনের বেশির ভাগ সময় জেলে কাটিয়েছে সেই নেতার জন্ম শতবার্ষিকী ১৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হয়।আজ তার শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের পক্ষ থেকে বনাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে। র‌্যালিতে আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল,মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, ফতুল্লা থানা যুবলীগ নেতা আজমত আলী, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান আজিজ সহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের সহস্রাধিক নেতা-কর্মীরা।

 


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *