সিদ্ধিরগঞ্জে ডাকাত সর্দার সেন্টু গ্রেফতার

সংবাদটি শেয়ার করুন:

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে ডাকাত সর্দার সেন্টুকে চাকুসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। গত রোববার রাতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের মাদানীনগর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃত ডাকাত সর্দার সেন্টুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদক, অস্ত্র ও ডাকাতিসহ ১১’টি মামলা রয়েছে। সেন্টুকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ৩৪ নং মামলায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ফয়সাল আলম সঙ্গীয় ফোসসহ ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের মাদানীনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ডাকাত সর্দার সেন্টুকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার কাছ থেকে একটি চাকু উদ্ধার করা হয়। মামলার বাদী রোহান পরিবহনের ঢাকা জোনের ম্যানেজার লিখিত ভাবে জানান যে, উক্ত রোহান পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস যাহার রেজিঃ নং- ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-০৩৭৪ গত ২৫’ফেব্রুয়ারী সকাল ১০’টার সময় বাগের হাট জেলার স্বরন খোলা বাস টার্মিনাল হইতে যাত্রী নিয়া চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হইয়া ২৫’ফেব্রুয়ারী রাত্র ১০’টার সময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন সাইনবোর্ড ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে পৌছাইলে রাস্তায় যানজটের কারনে গাড়ীটি থামাইলে রোড ডাকাত /উক্ত ধৃত আসামীসহ তাহার সহযোগী এজাহার নামীয় অপরাপর পলাতক ডাকাতসহ অজ্ঞাত নামা ৩/৪’জন সংঘবদ্ধ ডাকাতদল বিভিন্ন প্রকার দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়া গাড়ীতে উঠার চেষ্টা করে। গাড়ীর দরজা বন্ধ থাকায় ডাকাতদের মধ্যে ডাকাত সর্দার সেন্টু (৩৮) বাদীর উক্ত বাসের সামনে ডান পাশে ড্রাইভার শেখ রুবেল(৩৮) এর পাশের জানালা দিয়া ড্রাইভারের গলায় চাকু ঠেকাইয়া রাখে এবং সকল ডাকাতদল বাসের বাম পাশের দরজার গ্লাস ভাঙ্গে জোরপূর্বক বাসে উঠিয়া বাসের হেলপার রফিকুল ইসলাম(৩২), ও সুপারভাইজার সুমন(৩২)কে মারপিট করিয়া ডাকাতরা হেলপার ও সুপার ভাইজারের গলায় চাকু ঠেকিয়ে কেউ চিৎকার করিলে প্রাণে মারিয়া ফেলিবে বলিয়া ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে। ডাকাত সেন্টু গাড়ীতে উঠে গাড়ীর ড্রাইভারকে স্টেয়ারিং থেকে নামিয়ে দিয়া বাসের চালকের আসন নিজ নিয়ন্ত্রনে নিয়া বাসটি চালাইয়া দ্রুত কাঁচপুর ব্রীজের দিকে রওয়ানা করে। অতঃপর ডাকাতদল বাসটি সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মাদানী নগর মাদ্রাসার সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুরগামী রাস্তার উত্তর পাশে চাপাইয়া গাড়ীর সুপারভাইজারের নিকটে থাকা নগদ ১৪’হাজার ৮’শ টাকা এবং সুপারভাইজার ও হেলপারের নিকট হইতে মোট ২’টি টাচ মোবাইল যাহার মূল্য অনুমান ২৪’হাজার টাকা নিয়া যায়। ডাকাতরা বাসের পাশে নাম্বার বিহীন একটি নীল রঙ্গের মাহিদ্রা পিকআপ আনিয়া বাসের ৪’টি সাইট বক্সের ভিতরে ১১’টি ককসিটে থাকা নলা, রুই সহ বিভিন্ন প্রকার মাছ লুট করে পিকআপটিতে উঠাইয়া সকল ডাকাতরা দ্রুত কাচপুর ব্রীজের দিকে চলে যায়। লুটকৃত মাছের মূল্য অনুমান ১’লাখ ৫০’হাজার টাকা। ডাকাতদের মধ্যে উল্লেখিত ডাকাতদেরকে বাসের ড্রাইভার, হেলপার চিনে ফেলে তাহারা পূর্বেও বিভিন্ন সময়ে পরিবহনের বাসে ডাকাতির চেষ্টা করেছিল। এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মো. মশিউর রহমান পিপিএ বার বলেন, ডাকাত সরদার সেন্টুকে আমরা গ্রেফতার করেছি বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। সেন্টুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদক, অস্ত্র ও ডাকাতিসহ ১১’টি মামলা রয়েছে। 


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *