দেশবিরোধী চক্র এখনও ষড়যন্ত্র করছে ……………মন্ত্রী গাজী

সংবাদটি শেয়ার করুন:

স্টাফ রির্পোটার:
মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। মুজিব বর্ষে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও সেবায় নতুন মাত্রা সংযোজন করা হয়েছে। দেশবিরোধী চক্র এখনও নানা ষড়যন্ত্র করছে। তারা দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ করতে চায়। কোনো ষড়যন্ত্রই দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না ইনশাল্লাহ। এ জন্য উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। বর্তমান সরকারের আমলে দেশে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে। এই সরকারের আমলে দেশে যে পরিমাণ উন্নয়ন হয়েছে, অতীতে কোনো সরকারের আমলে এতো উন্নয়ন হয়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া এলাকায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারনী ফোরাম উপজেলা সমন্বয় কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী এবং নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের এমপি গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক) এ কথা বলেন। পাটমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু না থাকলে আমরা স্বাধীন দেশ পেতাম না, এখনো হয়তো আমাদের পাকিস্তানের গোলামি করেই জীবন কাটাতে হতো। বলার অপেক্ষা রাখে না, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের এক অবিসংবাদিত নেতা। যাঁর সাথে বাঙালির রয়েছে আত্মার সংযোগ, যাঁর কাছে বাঙালি খুঁজে পেয়েছে আত্মপরিচয়ের ঠিকানা। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এমনই এক উজ্জ্বল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব যিনি নেতা তো ছিলেনই তার চাইতেও বেশি ছিলেন কোটি মানুষের মনের কাছাকাছি এক প্রাণের মানুষ, আপন মানুষ। সেই মহান বিশাল মানুষের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন নিয়ে মানুষের প্রত্যাশাও কম নয়। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশেই নানা ভাবে তাদের জাতির মহান নেতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করা হয়। এই উদযাপনের অন্যতম লক্ষ্য থাকে কৃতি মানুষটির জীবনাদর্শ জনমানে ছড়িয়ে দেওয়া। নতুন প্রজন্মকে তার গুণে গুণান্বিত হতে উদ্বুদ্ধ করা। তেমনি ভাবে বাংলাদেশের সকল মানুষের উচিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী পালন করা। রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহজাহান ভুঁইয়া’র সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহ্ নুসরাত জাহান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার নুরজাহান আরা খাতুন, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ আলমাছ, ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুল হক ভুঁইয়া, ভোলাবো ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন টিটুসহ অনেকে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *