আমরা হকাররা মানুষরে সাথে গায়ে ধাক্কা লগেে বসতওে চাই না: হাফজিুল

সংবাদটি শেয়ার করুন:

নিজস্ব প্রতিনিধি:
হকার নেতা আসাদের মুক্তির দাবি ও ‘পূনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ চলবে না’ এই দাবিতে নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদের আয়োজনে বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ)বিকেল ৫টায় নারায়ণগঞ্জ চাষাড়ার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিত হয় এ বিক্ষোভ সমাবেশটি। বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টি (সিপিবি) জেলার সভাপতি হাফিজুল ইসলাম হাফিজ বলেন,আমরাও চাই আমাদের বাংলাদেশ ইউরোপ,আমেরিকার মত হোক।কিন্তু আপনে দুই একজন মানুষের জন্য বাংলাদেশকে ইউরোপ, আমেরিকা বানাবেন না।আমরা চাই আমাদের হকার পূর্ণবাসণের ব্যবস্থা করা হোক।আপনেরা আইনশৃঙ্খলা, সাংবাদিকরা খবর নিয়ে দেখুন এই হকার মার্কেটে বসার মত কোন ব্যবস্থা নেই যে হকার মার্কেট আমাদের হকারদের করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন,একজন মানুষ যদি মারা যায় তাহলে তাকে গোসল করার জন্য সাত ফুট জায়গার দরকার হয় কিন্তু একজন হকারকে ৩ফুট জায়গা দিয়ে বলেছেন হকারদের পূর্ণবাসণের জায়গা দিয়েছেন।আমরা হকাররা মানুষের সাথে গায়ে ধাক্কা লেগে বসতেও চাই না।আমাদের যদি পূর্ণবাসণের ব্যবস্থা করে দেন তাহলে আমরা ফুটপাতে বসবো না।আমরা চাই আমাদের দাবী মেনে নিলে আমাদের উপর জলকামান নিক্ষেপ করার প্রয়োজন হবে না।আমাদের হকাররা আন্দোলন করতে বা যুদ্ধ করতে আসে নাই।তারা নিজেদের জায়গা জমি,কেউ কেউ নিজের মা বোনের স্বর্ণ গয়না বিক্রি করে ব্যবসা দিয়ে বসেছে।তাই আমাদের হকাররা চায় শান্তিপূর্ণভাবে বসে ব্যবসা করতে। হাফিজুল ইসলাম আরো বলেন,আপনেরা আইনজীবী রাজনৈতিক দলের নেতারা আমাদের নামে মামলা করেছেন। আমরা চাই না রেলওয়ের জায়গা। আমরা সেই জায়গা দখল করতে চাই না।আমরা শুধু আমাদের পূর্ণবাসণের জায়গা চাই সরকারের জায়গা না।আমাদের দেশে অপরাধের সাথে সম্পৃক্ত, চাঁদাবাজির সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না কিন্তু যারা পেটের জন্য রুটি রুজি জন্য কাজ করে তাদের পেটে লাথি মেরে বঞ্চিত করছেন।আমাদের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন পূর্ণবাসণ ছাড়া হকার উচ্ছেদ চলবে না।আমরা বলতে চাই পূর্ণবাসণ ছাড়া হকার উচ্ছেদ চলবে না। তিনি হকার নেতা আসাদের মুক্তির বিষয়ে বলেন,আমরা বলেছিলাম আমাদের হকার নেতা আসাদকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাকে মুক্তির দাবী করেছিলাম।আইন অনুযায়ী তাকে যেভাবে ছুটানো যায় তার জন্য চেষ্টা করছি।আমরা উচ্চ আদালত থেকে তাকে ছুটিয়ে নিয়ে আসবো আইনী প্রক্রিয়ায়।আমরা আইনশৃঙ্খলা বিঘ্ন করতে চাই না।আমাদের উদ্দেশ্য বিশৃঙ্খলা করার না।আমরা আজকের এই সমাবেশে বলতে চাই আমরা আইনী প্রক্রিয়ায় আমাদের নেতাকর্মীদের ছুটিয়ে আনবো।কিন্তু হকারদের পূর্ণবাসণ ছাড়া তাদের উচ্ছেদ করা যাবে না।যারা রাস্তায় চা বিক্রি করে,ফল বিক্রি করে তাদের রাস্তা থেকে উঠানো যাবে না।এটার সাথে মেয়রও একমত হয়েছিলেন।কিন্তু আমাদের হকার সকল ভাইদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন হকার নেতা দীলিপ কুমার দাস,আব্দুল সালাম বাবু,ইকবাল হোসেন, শ্রমিক নেতা এম. এ শাহীন আবুল হোসেন, আইয়ুব আলী, নাছির হোসেনসহ অন্যন্য নেতৃবৃন্দ ও হকারবৃন্দ।


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *