বন্দর এলাকায় র্যা ব-১১’র অভিযানে ১ হাজার ৫০ পিছ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী রমজান গ্রেফতার

সংবাদটি শেয়ার করুন:

স্টাফ রির্পোটার:

সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীনগরে অবস্থিত র‌্যাব-১১’র বন্দর এলাকায় অভিযানে ১’হাজার ৫০’পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী রমজানকে গ্রেফতার করেছে। গত ৭’মার্চ সকালে বন্দর থানার মদনপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গতকাল ধৃত রমজানকে মাদক মামলা দায়ের পূর্বক সংশ্লিষ্ট থানায় হস্থান্তর করা হয়।

ব্যার জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১’র একটি দল গত ৭ মার্চ সকাল ৯ টায় মদনপুরস্থ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়েকে অবস্থিত রাফি ফিলিং স্টেশনের চেকপোষ্ট বসিয়ে কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী একটি বাস হতে রমজান শেখ নামক এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। পরে কাছ থেকে ১’হাজার ৫০’পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। ধৃত রমজান আলী রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর থানাধীন আন্দারমানিক গ্রামের মোঃ আলম শেখের ছেলে। গতকাল সোমবার সকালে র‌্যাব-১১’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( সিপিএসসি আদমজীনগর) মোঃ জসিম উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ধৃত রমজান প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার কথা ও আচরণে অসংলগ্নতা এবং অস্বাভাবিকতা প্রকাশ পেলেও ইয়াবা পাচারের বিষয়ে সে অস্বীকার করে। অতঃপর গোপনসূত্রে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী তার পেটের ভিতর ইয়াবা রয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন আলিফ ডক্টরস চেম্বার এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে এক্স-রে করে দেখা যায় তার পেটের ভিতর অসংখ্য ডিম্বাকৃতির বস্তু বিশেষ রয়েছে। উক্ত ঘটনার সত্যতা অধিকতর যাচাইয়ের নিমিত্তে নারায়ণগঞ্জের সদর মডেল থানাধীন জেনারেল হাসপাতাল ভিক্টোরিয়া এর অবজারভেশন ওয়ার্ডের কক্ষে নিয়ে যাওয়া হয়। পরবর্তীতে নিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে গ্রেফতারকৃত রমজান শেখ স্বীকার করে যে তার  পেটের ভিতর কালো টেপ দিয়ে মোড়ানো ছোট ছোট ২১’টি ইয়াবার পোটলা রয়েছে যার প্রত্যেকটিতে ৫০’পিস করে মোট ১’হাজার ৫০’ পিস ইয়াবা রয়েছে। সে আরও স্বীকার করে যে, টেকনাফে এই ইয়াবার পোটলাগুলো সে খাবারের সাথে গিলে খায় এবং কলা এবং পাউরুটি খেয়ে সেই পোটলাগুলো পায়ু পথ দিয়ে বের করে। অতঃপর তাকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাক্তারের চিকিৎসা প্রদানের পর হাসপাতালের টয়লেটে গিয়ে তার পায়ু পথ দিয়ে কালো টেপ দ্বারা মোড়ানো ছোট ছোট ডিম্বাকৃতির ২১’টি পোটলা বের করে দেয়। উক্ত পোটলাগুলো হতে প্রত্যেকটিতে ৫০ ’পস করে ইয়াবা পাওয়া যায়। গ্রেফতারকৃত আসামী দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা পাচারের সাথে জড়িত এবং এভাবে অভিনব কৌশলে নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকায় মাদকদ্রব্য ইয়াবা বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে। 


সংবাদটি শেয়ার করুন:

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *